WBSSC Teacher Recruitment 2022

WBSSC Teacher Recruitment 2022: টেট নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে একের পর এক নয়া তথ্য উঠে আসছে। বর্তমানে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে রাজ্যে সরগরম পরিস্থিতি। এই নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায় ইডির হেফাজতে রয়েছে। তাদের একের পর এক ফ্ল্যাট থেকে কোটি কোটি নগদ টাকা, সোনার অলংকার, বিদেশি মুদ্রা উদ্ধার হচ্ছে। এ যেন সিনেমার কোন গল্প প্রায় প্রতিদিনই নতুন নতুন ক্লাইম্যাক্স দেখা যাচ্ছে। যা দেখে সকলেই স্তম্ভিত।

একের পর এক বেলাগাম দুর্নীতি দেখে রাজ্যের মানুষ চমকে গিয়েছেন। কোথাও গাড়ি ধরা পড়ছে, তো কোথাও নগদ টাকা পাওয়া যাচ্ছে। পার্থ- অর্পিতা কাণ্ডে সরকার যথেষ্ট ব্যাকফুটে। বিরোধীরা একের পর এক আক্রমণ শাণাতে শুরু করেছে। তবে ইতিমধ্যেই মন্ত্রিসভা থেকে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে বরখাস্ত করা হয়েছে। দলীয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেস সমস্ত পদ থেকে পার্থকে সরিয়ে দিয়েছে।শাসকদল কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে (WBSSC Teacher Recruitment 2022)।

এই আবহেই শিক্ষক পদের চাকরি প্রার্থীদের সঙ্গে নিজের অফিসে দেখা করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা অভিষেকের সঙ্গে দেখা করেছেন তাদের মধ্যে নবম, দশম, একাদশ, দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষক পদের চাকরি প্রার্থীরা।

অন্যদিকে এসএসসির শারীর শিক্ষা, কর্ম শিক্ষা পদের চাকরি প্রার্থীদের সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য সম্পাদক এবং মুখপাত্র কুনাল ঘোষ দেখা করলেন। তারপরেই শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু স্কুলে প্রধান শিক্ষক এবং শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে আলোচনা করার জন্য উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডাকলেন। সোমবার বিকাশ ভবনে এই বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

সূত্র মারফত খবর এই বৈঠক ডাকার কারণ চাকরি প্রার্থীদের (WBSSC Teacher Recruitment 2022) রাজ্য সরকার দ্রুত নিয়োগ করতে চায়। সোমবার একদিকে যখন শিক্ষা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু চাকরি প্রার্থীদের এই বিষয়টি নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করবেন। আর অন্যদিকে সোমবার দিন নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মন্ত্রিসভা নিয়ে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

মন্ত্রিসভার বড় কোনো রদবদল হতে পারে বলেই মনে করছে অভিজ্ঞ মহল। তার আগে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর এই বৈঠক যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। এছাড়াও বেশ কয়েকটি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন শিক্ষামন্ত্রী। আর আধিকারিক পর্যায়ের রদবদল হতে পারে বলে জানা গিয়েছে।

কলকাতা হাইকোর্ট রাজ্য সরকারের কাছে নিয়োগ নিয়ে শূন্য পদের তালিকা চেয়ে পাঠায়। এই বিষয়ে স্কুল শিক্ষা দপ্তরের প্রধান সচিব জানান রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলে 2325 টি প্রধান শিক্ষকের পছন্দ রয়েছে। আর মোট শূন্য পদ 21 হাজার 694 রয়েছে। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় জানান, এই সমস্ত শূন্য পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো আইনি বাধা নেই। তাই দ্রুত নিয়োগ (WBSSC Teacher Recruitment 2022) করা যেতে পারে।আর তারপরেই শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু সোমবারের বৈঠক ডাকেন।

বহুদিন ধরেই নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে। ব্রাত্য বসুর এই বৈঠকে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ নিয়েই মূল আলোচনা হতে চলেছে বলে জানা যাচ্ছে। তবে রাজ্যের মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষক নিয়োগ (WBSSC Teacher Recruitment 2022) নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানা গিয়েছে। একদিকে পার্থর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ এবং অন্যদিকে রাজ্যজুড়ে প্রধান শিক্ষক এবং শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু করার মধ্য দিয়েই ড্যামেজ কন্ট্রোল করা যাবে বলেই মনে করছে অভিজ্ঞ মহল। অর্থাৎ খুব শীঘ্রই বিপুল সংখ্যক শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.