Swasthya Sathi card

Swasthya Sathi card: আমাদের জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল আমাদের স্বাস্থ্য। এই স্বাস্থ্যকে রক্ষা করা আমাদের সকলের কাম্য। স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল।জীবনে সুখী হওয়ার উপায়গুলোর মধ্যে অন্যতম হল নিজের স্বাস্থ্যের সঠিক খেয়াল রাখা। কারন নিজের স্বাস্থ্য যদি ভালো না থাকে,তাহলে কোন ভাবেই সুখী হওয়া সম্ভব নয়। তাই সুখী জীবনের জন্য নিজের স্বাস্থ্যের দেখভাল করা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর মধ্যে একটি।

Lakhir Bhandar: লক্ষীর ভান্ডার নিয়ে দীর্ঘ জট কাটতে চলেছে?কি সেই জট জেনে নিন

বিগত দুবছরে বিশ্বব্যাপী করোনা অতিমারি থাবা বসিয়েছিল। অনেকেই এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। এই রোগের কারনে অনেকেই নিজেদের কাছের মানুষকে চিরদিনের মত হারিয়েছেন। তাই এখন আর কেউ নিজের কাছের মানুষদের হারাতে চায় না।আর তার জন্য নিজেদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন হওয়া প্রয়োজন। প্রত্যেকেরই সুস্বাস্থ্য বজায় রাখা অত্যন্ত জরুরি।

কিন্তু বাংলার গ্রাম বা শহরের প্রান্ত ঘুরলে এখনও স্বাস্থ্য নিয়ে অসচেতনা চোখে পড়ে। আমাদের দেশের একটা বড়ো অংশের মানুষের স্বাস্থ্য সচেতনতা এখনও একেবারেই তলানিতে রয়েছে। স্বাস্থ্য সুরক্ষা কিংবা স্বাস্থ্য বিমার মতো শব্দগুলি তাঁদের কাছে যেন ছিল অলীক কল্পনা। এখনও কিছু প্রত্যন্ত গ্রামে নিয়ম মেনে স্বাস্থ্যের দেখভাল করার অভ্যেস প্রায় নেই বললেই চলে।

SBI Clerk Recruitment 2022: সুখবর!SBI ৫,০০০-র বেশি শূন্যপদে নিয়োগ করছে, আবেদনের যোগ্যতা,তারিখ সহ বিস্তারিত দেখে নিন

আবার অনেকের হয়তো সঠিক সময়ে নিয়মিত চেক-আপ করার সামর্থ্য হয়ে ওঠে না।আবার অনেকের ক্ষেত্রে খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থানের কাছে স্বাস্থ্য এখনও অনেকের কাছে বিলাসিতা মনে হয়। কিন্তু সুস্বাস্থ্যের প্রথম বা প্রধান লক্ষ্য হওয়া উচিত রোগ-ব্যধি থেকে মুক্ত থাকা। গুরুতর রোগের চিকিৎসা কীভাবে হবে, তার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থের সংস্থানই বা হবে কোথা থেকে, এসব নিয়ে অনেকেই দুশ্চিন্তায় দিন কাটায়।

আর তাই স্বাস্থ্য সংকটের বিষয়টি মাথায় রেখেই রাজ্যবাসীর একটা বড়ো অংশকে স্বাস্থ্য বিমার আওতায় আনতে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প চালু করেছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই প্রকল্প রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় নয়া দিগন্ত খুলবে বলে আশা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যবাসীর সুস্থ, সুরক্ষিত স্বাস্থ্য গড়ে তোলার লক্ষ্যেই স্বাস্থ্যসাথী কার্ড চালু করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

Bangla Awas Yojana: এই নতুন প্রকল্পে আবেদন করলে ৫০ লক্ষ মানুষ ১ লক্ষ ২০ হাজার করে টাকা পাবেন, কি সেই প্রকল্প জানুন

এই কার্ডের মাধ্যমে রাজ্যের সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে চিকিৎসার পরিষেবা পাবেন। অর্থের অভাবে যেন কারও চিকিৎসা থমকে না থাকে, সেই উদ্দেশ্যেই এই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড চালু করে রাজ্য সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল সহ নির্বাচিত বেসরকারি হাসপাতালেও এই কার্ড দেখিয়ে বিনামূল্যে সুযোগ সুবিধা মিলবে। প্রয়োজন অনুযায়ী স্বাস্থ্যসাথীর মাধ্যমে অপারেশন ও অন্যান্য বাড়তি চিকিৎসাও করা হবে।

রাজ্যবাসীর সুস্বাস্থ্য গঠনে সর্বদাই তৎপর পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সেই উদ্দেশ্যেই প্রত্যেক রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদান করতেই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড চালু করা হয়েছে। আসলে যেই দেশে দিন আনতে পান্তা ফুরোয়, সেখানে স্বাস্থ্যের দেখভাল অনেক ক্ষেত্রেই বাধা হয়ে দাঁড়ায়। নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা, চেক আপ তো দূর, বড় কোনও রোগের আশঙ্কা থাকা সত্ত্বেও অর্থ চিন্তায় ডাক্তারের কাছে যান না অনেকে।

কম দামে পাওয়া যাচ্ছে আইফোন, সব সামগ্রীতে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় Flipkart Big Billion Days তে

আগে দারিদ্রসীমার নীচে থাকা লোকজন ও সরকারি অসংগঠিত ক্ষেত্রে চাকুরেদের জন্য এই সুবিধা উপলব্ধ ছিল। তবে এবার রাজ্যবাসীর জন্য নতুন করে বিশাল বড় একটা সুখবর রয়েছে। এখন রাজ্যের প্রতিটি বাসিন্দার জন্য রাজ্য সরকার স্বাস্থ্য সাথী কার্ড চালু করতে চলেছে। রাজ্য সরকারের তরফে এই সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হবে রাজ্যের প্রতিটি বাসিন্দাদের।

স্বাস্থ্য পরিষেবা এবার রাজ্যের প্রতিটা বাসিন্দার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়া হবে। ছোট থেকে বড় শিক্ষিত অশিক্ষিত নারী-পুরুষ সকলেই এই প্রকল্পের সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। যে সকল পরিবারে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকবে সেই সকল পরিবারকে চিকিৎসা করার জন্য ৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। সেই ৫ লক্ষ টাকা দিয়ে সরকারি অথবা বেসরকারি হসপিটাল চিকিৎসা করা যাবে।

তাই দেরি না করে অবশ্যই স্বাস্থ্য সাথী কার্ড করুন। বাড়িতে বসে মোবাইল দিয়ে বা ল্যাপটপ দিয়ে নিজেরাই অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। কারা আবেদন করতে পারেবেন,কিভাবে আবেদন করতে হবে এবং কি কি প্রয়োজনীয় নথিপত্র লাগবে বিস্তারিত আলোচনা করা হল-

  • কারা কারা আবেদন করতে পারবেন:-

পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি বাসিন্দা এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন। পুরুষ মহিলা ছোট-বড় শিক্ষিত অশিক্ষিত সকলের জন্যই রাজ্য সরকারের নতুন এই প্রকল্প।

  • আবেদন প্রক্রিয়া:-

১)অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করার জন্য প্রথমে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
২) তারপর Apply Online ক্লিক করতে হবে।এরপর Online application For Swasthya Sathi এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৩)তারপর আপনার মোবাইল নাম্বার দিয়ে লগ ইন করতে হবে।
৪)এরপর প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট দিতে হবে যেমন নাম, ঠিকানা, আঁধার নম্বর, মোবাইল নাম্বার।
৫)তারপর পরিবারের সকল সদস্যের নাম যুক্ত করতে হবে। সমস্ত কিছু ঠিকঠাকভাবে হয়ে যাওয়ার পর সাবমিট করতে হবে।৬)সাবমিট করার পর একটি ওটিপি আসবে আপনার ফোনে সেই ওটিপিটি যত্ন সহকারে রেখে দিতে হবে সেটি দিয়ে পরে স্ট্যাটাস চেক করা যাবে।

  • প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট :-

১)আঁধার কার্ড।
২)রেশন কার্ড।
৩)মোবাইল নাম্বার।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

👍 Google News

👍 টেলিগ্রাম চ্যানেলে

By Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক Webscte.in এ সকল প্রকারের চাকরি ও শিক্ষার খুঁটিনাটি খবর সহ এই সাইটে সরকারি প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.