Primary TET Scam

Primary TET Scam: গোটা রাজ্য জুড়ে স্কুল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগে ব্যাপক দুর্নীতির জেরে জেরবার তৃণমূলের মা মাটি মানুষের সরকার। টেট কাণ্ডে পাহাড় প্রমাণ দুর্নীতি আড়াল করতে ঠিক কী করা উচিৎ আর কী করা উচিৎ নয় তা বুঝে উঠতে পারছে না তারা। সিবিআই যেন তৃণমূল সরকারের গোদের ওপর বিষ ফোঁড়া হয়ে বসে রয়েছেন।

WBCHSE Exam 2023: পরীক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য আগামী বছরের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে বড় ঘোষনা

শিক্ষক নিয়োগ (SSC Scam ) বির্তক ঘিরে উত্তাল গোটা রাজ্য। একের পর এক দুর্নীতি মামলায় রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বিরোধী দলগুলি শাসক দলকে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না। রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত তদন্তে নেমে সিবিআই একের পর এক দুর্নীতি প্রকাশ্যে আনছে। সিবিআই যেন বর্তমান তৃণমূল সরকারের ঘারের ওপরে তলোয়ার হয়ে ঝুলছে।

Child’s Mobile Phone Addiction: আপনার সন্তান মোবাইল ফোনের আসক্তি কি? তাহলে এই 4 টি উপায় অবলম্বন করলে কমবে

ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা গ্রেফতার হয়েছেন। তাদের একাধিক ফ্ল্যাট থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার করেছে সিবিআই। এমনকি শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত একাধিক নথিও মিলেছে তল্লাশিতে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতার পাশাপাশি গ্রেফতার হয়েছেন SSC-র দুই প্রাক্তন উপদেষ্টা শান্তিপ্রসাদ সিনহা এবং অশোক সাহা।সিবিআই এবং ইডি জোর কদমে তদন্ত করছে।

Samman Nidhi Yojana: সুখবর! পুজোর আগেই ২০০০ টাকা পাবেন সরাসরি ব্যাংক একাউন্টে, কারা কারা পাবেন জানুন

এছাড়াও এই নিয়োগ দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে মঙ্গলবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি পদ থেকে মানিক ভট্টাচার্য অপসারিত হন। তার বদলে দায়িত্ব পান কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য গৌতম পাল। রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি সহ একাধিক বিষয়ে প্রতিদিনই নতুন নতুন অভিযোগ সামনে আসছে।

PM Awas Yojana New List: প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার নতুন লিস্ট প্রকাশিত হয়েছে, ডাউনলোড করে দেখে নিন

এসবের মধ্যে আবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ও টেটেই ব্যাপক দুর্নীতির (Primary TET Scam)সন্ধান পেল ইডি। স্কুল সার্ভিস কমিশনের থেকেও প্রাথমিকে শিক্ষক (primary teachers) নিয়োগে আরও ব্যাপক দুর্নীতি রয়েছে বলে মনে করছে ইডি। কেন্দ্রীয় সংস্থার নজর এখন প্রাথমিকে নেওয়া তিনটি টেট পরীক্ষা। আশঙ্কা করা হচ্ছে ২০১২ ও ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিযুক্ত শিক্ষকদের একটা বড় অংশ এবার বিপদে পড়তে চলেছেন।

Gas Price: পুজোর আগে বাম্পার অফার মোদীর! গ্যাস সিলিন্ডার মিলবে মাত্র ৬১৯ টাকায়, কিভাবে বুক করবেন দেখুন

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার গঠনের পরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (Primary School) শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষা (TET) তিনবার নেওয়া হয়েছে। ইডি (ED) বা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট নিয়োগ তদন্তে সেই সব টেট (Primary TET) কেই পাখির চোখ করছে। ইডির অনুমান প্রাথমিক টেট (Primary TET) ঘিরে চাকরি বিক্রির খাতে প্রায় হাজার কোটি টাকা তোলা হয়েছে।

২০১২ সালের নির্ধারিত প্রাথমিক টেট ওই বছরেই নেওয়া হয়েছিল। ২০১৪-র প্রাথমিক টেট হয় ২০১৫ সালে। আর ২০১৭-র প্রাথমিক টেট ২০২১ সালে হয়েছে। তবে সেই পরীক্ষার প্রেক্ষিতে এখনও নিয়োগ হয়নি। এই তৃতীয় টেটের (TET 2017 ) ভিত্তিতে এখনও কোনও নিয়োগ না হলেও টাকা নিয়ে সেই নিয়োগের তালিকা করা হয়েছিল বলে জেনেছে ইডি।

২০১৪-র টেটের ভিত্তিতে বেআইনি নিয়োগের মামলা (Primary TET Scam) হয়েছে। কিন্তু টাকার খেলা ২০১২- র টেটের ভিত্তিতে নিয়োগের সময় থেকেই শুরু হয়েছিল বলে তদন্তকারীদের দাবি। ইডি-র প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে ২০১২ ও ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে ৯০ শতাংশ নিয়োগই টাকা নিয়ে করা হয়েছে। ২০১২ ও ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিযুক্ত শিক্ষকদের একটা বড় অংশ কি তাহলে বিপদে পড়তে চলেছে এখন সেটাই দেখার।

By Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক Webscte.in এ সকল প্রকারের চাকরি ও শিক্ষার খুঁটিনাটি খবর সহ এই সাইটে সরকারি প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.