Post Office Scheme 2022: পোস্ট অফিসে ২৫০ টাকা বিনিয়োগ করলে আপনি ৫ বছরে ৫ লক্ষ টাকা পাবেন জানুন কীভাবে?

Post Office Scheme 2022: সুনিশ্চিত ভবিষ্যতের জন্য আয়ের পাশাপাশি সঞ্চয় করাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ভবিষ্যতে কোনও জরুরি পরিস্থিতি হোক বা অবসরের পর জীবনযাপনের একমাত্র ভরসা এই সঞ্চয়। কিন্তু অনেকেই ঠিক করে উঠতে পারেন না কোথায় সঞ্চয় করবেন। সঞ্চয়ের জন্য বিভিন্ন পথ খোঁজ করেন। এক্ষেত্রে পোস্ট অফিস তার গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন স্কিম চালায়।

পোস্ট অফিসের স্কিমগুলিতে (Post Office Scheme 2022) বিনিয়োগ করলে দুর্দান্ত মুনাফা অর্জন করতে পারেন। পোস্ট অফিসের স্কিমে (Post Office Scheme 2022) বিনিয়োগ ঝুঁকিপূর্ণ ও নিরাপদ। পোস্ট অফিসের ফিক্সড ডিপোজিট ও রেকারিং ডিপোজিটে অপেক্ষাকৃত বেশি হারে সুদ পাওয়া যায়। পোস্ট অফিসে রেকারিং ডিপোজিটে বিনিয়োগে জনসাধারণের জন্য বড় সুযোগ রয়েছে। এতে বেশি অর্থ ফেরত পাওয়া যায়।

Advertisement

বয়স ১৮ থেকে ৬০ হলেই, বছরে পেয়ে যাবেন ২ লক্ষ টাকা, বাংলার সমাজ সাথী প্রকল্প -এর সম্পর্কে জানুন

রেকারিং পোস্ট অফিসের একটি ছোট সঞ্চয় প্রকল্প। এই স্কিমে যে পরিমাণ বিনিয়োগ করেন তা নিরাপদ থাকে। আপনার সুবিধা অনুযায়ী এক বছর দুই বছর বা তার বেশি মেয়াদের জন্য রেকারিংয়ে জমা স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন। এতে প্রতি তিন মাসে করা পরিমাণের ওপর সুদ জমা হয়। প্রতি তিন মাসের শেষে সুদের সঙ্গে সুদের পরিমাণ আপনার অ্যাকাউন্টে জমা হয়।

সকলেই হয়ত রেকারিং ডিপোজিট একাউন্টের ব্যাপারে জানেন। ভারতীয় পোস্ট অফিস এই ধরনের কিছু অ্যাকাউন্ট ভারতের জনসাধারণের জন্য নিয়ে এসেছেন। পাঁচ বছরের জন্য আপনারা এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন এবং সেখানে আপনি যা টাকা জমা করবেন তার জন্য একটা মোটা টাকা সুদ পেয়ে যাবেন।

Advertisement

সুদের হার কত?

বর্তমানে পোস্ট অফিসের এই প্রকল্পে ৫.৮ শতাংশ হারে সুদ পাওয়া যাচ্ছে। এই সুদের হার ১লা এপ্রিল ২০২০ থেকে প্রযোজ্য।কেন্দ্র সরকার প্রতি ত্রৈমাসিকে তার সঞ্চয় প্রকল্পের সুদের হার নির্ধারণ করে।

এই অ্যাকাউন্ট কারা খুলতে পারবেন?

যে কেউ এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। নাবালক অবস্থাতেও এই ধরনের অ্যাকাউন্ট খোলা যেতে পারে। পরবর্তীতে যদি সেই ব্যক্তি সাবালক হয়ে যান তাহলে তিনি নিজের একাউন্ট বড় করতে পারেন নাম পরিবর্তন করতে পারেন।

আপনি নিজের জন্য একটি রেকারিং ডিপোজিট বা আরডি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। আপনি প্রতিদিন ২৫০ টাকা করে বাঁচাতে পারেন তাহলে আপনি প্রতি মাসে ৭৫০০ টাকা করে পোস্ট অফিসে জমা করুন। যদি আপনি প্রতিমাসে এই টাকা রাখতে পারেন তাহলে ৫.৮ শতাংশ সুদ দিলে পাঁচ বছর পরে আপনি ম্যাচিউরিটির সময় ৫,২২,৭২৫ টাকা পেয়ে যাবেন।

বিচারপতির নির্দেশে বিপদ বাড়ল বেআইনিভাবে নিয়োগ প্রাপ্তদের, ৭ নভেম্বরের মধ্যে চাকরি ছাড়তে হবে! | Primary tet 2014 case

তবে যদি কোন মাসে আপনি সেই টাকা জমা করতে না পারেন তাহলে আপনি সমস্যার মধ্যে পড়বেন। ডাকঘরের এই ধরনের ডিপোজিট একাউন্ট খোলার ন্যূনতম থ্রেসোল্ড প্রতি মাসে ১০ টাকা। ৫ টাকার গুণিতক একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দিয়ে আপনারা এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন। পাঁচ বছরের এই রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট অত্যন্ত সুরক্ষিত এবং উচ্চ রিটার্নের একটি অ্যাকাউন্ট।

পোস্ট অফিসের এই স্কিমে (Post Office Scheme 2022) কি কি সুবিধা রয়েছে?

১)এই ধরনের অ্যাকাউন্ট আপনি এক ডাকঘর থেকে অন্য ডাকঘরে ট্রান্সফার করতে পারেন।

২)একসাথে ছয় মাসের টাকা জমা করলে তাকে ভারতীয় পোস্ট অফিসের তরফ থেকে একটা বিশেষ ছাড় দেওয়া হয়।

৩)এই খাতা খোলার এক বছর পরে আপনি এই একাউন্টের ৫০ শতাংশ টাকা তুলতে পারবেন।

৪)এই স্কিমে আপনি যদি ১২টি কিস্তি জমা করেন তাহলে এর ভিত্তিতে ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ পেতে পারেন। অ্যাকাউন্টে জমা হওয়া মোট অর্থের ৫০ শতাংশ ঋণ হিসাবে পাওয়া যাবে।

Written by Probir Biswas

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

 Google News | | টেলিগ্রাম চ্যানেলে

Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles