Samman Nidhi Yojana

Samman Nidhi Yojana: পৃথিবীর আদিমতম পেশা কৃষি। প্রাচীনকালে সবাই কৃষি পেশার সঙ্গে জড়িত ছিল। এখনও বেশিরভাগ মানুষের জীবিকার একমাত্র উৎস কৃষি খাত। সুজলা সুফলা এ দেশে কৃষক ফসল ফলালে তবেই আমাদের অন্ন জোটে। কৃষকের উদপাদিত ফসল থেকে প্রাপ্ত খাদ্য খেয়েই আমরা বেঁচে থাকি। একটি সমাজ বা রাষ্ট্রকে বাঁচিয়ে রাখতে কৃষক প্রধান ভূমিকা পালন করে থাকে। অথচ আমাদের দেশের কৃষকেরা সবচেয়ে বঞ্চিত, কৃষকের অস্তিত্ব জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। কৃষক যদি খাদ্য উৎপাদন না করত, তাহলে আমরা আজ আরাম আয়েশ করে খেতে পারতাম না।

PM Awas Yojana New List: প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার নতুন লিস্ট প্রকাশিত হয়েছে, ডাউনলোড করে দেখে নিন

মাথার ঘাম পায়ে ফেলে, রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে সারাদিন কষ্ট করে কৃষকরা মাঠে ফসল ফলায়। আপন সন্তানের মতো যত্ন নেয়। অক্লান্ত পরিশ্রম করে ঘরে তুলে আনে ফসল। অথচ আমাদের দেশের কৃষকেরা তার ন্যায্য দাম পায় না। যে অর্থ খরচ করে ফসল উদপাদন করা হয় সেই অর্থ তুলতেই হিমশিম খেতে হয়, লাভ তো দূরের কথা।

বছরের পর বছর কৃষিকাজ করে লাভের মুখ দেখতে পান না কৃষকরা উল্টে লোকসান হয়। কষ্টের ফসলের দাম না পেয়ে খেতে পোড়ানোর ঘটনাও ঘটেছে। ফসল উৎপাদনে যা খরচ হয়,তাও কোন সময় উঠে আসে না। সারা বছর ফসল ফলিয়েও কিছু কৃষকের কষ্টের সীমা থাকে না। অনেক কৃষকরা ফসল ফলানোর কাজে কৃষি ঋণ নেন।

Gas Price: পুজোর আগে বাম্পার অফার মোদীর! গ্যাস সিলিন্ডার মিলবে মাত্র ৬১৯ টাকায়, কিভাবে বুক করবেন দেখুন

ফলন ভালো হলে ঋণ পরিশোধ করা সম্ভব হয়; আর ফলন ভালো না হলে কিংবা বন্যা-ঝড়-জলোচ্ছ্বাস হলে সর্বহারা হয়ে অনেক কৃষক ঋণ পরিশোধের ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন। তাছাড়া ক্ষতি পুষিয়ে তাদের আবার ঘুরে দাঁড়াতে সময় লাগে অনেক। এই সব কারণে কৃষকদের পরিবার-পরিজন নিয়ে হিমশিম খেতে হয়। অনেক ক্ষেত্রে তাদের কৃষিকাজ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়।

অনেক সময় দেখা যায় কৃষক বন্ধুরা চাষ করার সময় তাদের হাতে সেই পরিমাণ অর্থ মজুত থাকে না, এ সমস্ত কৃষকদের আয় সুনিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে এবং গরীব চাষিদের জন্য আর্থিক সাহায্য করার লক্ষ্য মাথায় নিয়েই পশ্চিমবঙ্গ সরকার একাধিক প্রকল্প চালু করেছেন। বাংলার কৃষকদের কথা মাথায় রেখে ২০১৯ সালে চালু হয় ‘প্রধান প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি’প্রকল্প (PM Kisan Samman Nidhi Yojana)। এই প্রকল্প শুরু করেন প্রধান প্রধান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Loan For Farmers:স্বল্প (low interest) সুদের ভিত্তিতে কৃষকদের প্রায় ৩ লক্ষ টাকা কৃষি ঋণ দিচ্ছে সরকার

দেশের কৃষকদের যদি ২ একর বা তার বেশি জমি থাকে তাহলে তারাই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন। প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নীধি যোজনায় (PM Kisan Samman Nidhi Yojana) প্রতিবছরে ছয় হাজার টাকা করে পেয়ে থাকেন দেশের ছোট কৃষকরা।প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান যোজনা শুরু হবার সময় থেকে জালিয়াতি রুখতে কড়া নিয়ম কানুন শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। কৃষকরা যাতে প্রচারিত না হন তাও নিশ্চিত করছে সরকার।

অনেকের মনে প্রশ্ন উঠে স্বামী এবং স্ত্রী দুজনেই যদি কৃষক হন তাহলে দুজনেই প্রধানমন্ত্রী সম্মান নিধি যোজনার টাকা পাবেন কি?

এর উত্তরটা হল না। কোন একটি কৃষক পরিবারের শুধুমাত্র এক সদস্য এই কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা গ্রহণ করতে পারেন এবং বছরের ৬০০০ টাকা পেতে পারেন। প্রতি চার মাস অন্তর কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে ২০০০ টাকা করে পাঠাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। এখনো পর্যন্ত এই কিষান সম্মান নিধি যোজনার (PM Kisan Samman Nidhi Yojana) ১১ টি কিস্তি কৃষকদের একাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Business Idea: আপনি কি অল্প পুঁজিতে ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন ,তাহলে এই ব্যবসা করে লাখপতি হতে পারেন

এই মুহূর্তে বহু কৃষক এই প্রধানমন্ত্রী কিষান প্রকল্পের পরবর্তী কিস্তির জন্য অপেক্ষা করছেন। তার মধ্যে আর কিছুদিনের মধ্যে শুরু হচ্ছে বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গাপুজো। জানা যাচ্ছে উৎসবের মৌসুম শুরু হওয়ার আগেই দ্বাদশ কিস্তির টাকা পেয়ে যেতে চলেছেন কৃষকরা। আগস্টের শেষ সপ্তাহে বা সেপ্টেম্বরের শুরুতে কৃষকদের ব্যাংক একাউন্টে ২ হাজার টাকা করে পাঠিয়ে দেবে কেন্দ্রীয় সরকার।

কৃষকদের জন্য আরেকটি সুখবর দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার।কেন্দ্রিয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে ই কেওয়াইসি দাখিলের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।আগামী ৩১ জুলাই এর মধ্যে কেওয়াইসি পূরণ করার সময়সীমা ছিল।কিন্তু সেই তারিখ বাড়িয়ে ৩১ আগস্ট করা হয়েছে। এর ফলে আরো একমাস সময় পেয়ে যাচ্ছেন কৃষকরা। যে সমস্ত কৃষকরা যারা কেওয়াইসি তৈরি করেননি,তারা এই সময়সীমার মধ্যে করিয়ে নিতে পারবেন। এই নতুন কেওয়াইসি না করলে কৃষকরা প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি যোজনার পরের কিস্তির টাকা পাবেন না।

By Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.