চলতি মাসে উৎসবের মরসুমে রেশনে অতিরিক্ত সামগ্রী দেওয়া হবে,কোন কার্ডে কি কি সামগ্রী দেওয়া হবে দেখুন | Free ration scheme 2022 October

উৎসবের মরসুমে অক্টোবর মাসে অতিরিক্ত সামগ্রী পাবেন রেশনে, কোন কার্ডে কি কি পাবেন বিস্তারিত পড়ুন

উৎসবের মরসুমে সমগ্র পশ্চিমবঙ্গবাসীর জন্য দারুণ এক সুখবর রয়েছে। চলতি অক্টোবর মাসে রেশনে অতিরিক্ত সামগ্রী (free ration scheme 2022 october) দেওয়া হবে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে এমনি এক প্রকাশ করা হয়েছে।পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুসারে সমগ্র বাংলার নাগরিকদের সুবিধার খাতিরে সেপ্টেম্বর মাসের মতোই অক্টোবর মাসেও রেশনে চাল, গম, আটার পাশাপাশি আরও কিছু অতিরিক্ত দ্রব্য দেওয়া হবে।

২০২০ সালে করোনা অভিমারীর কারণে সমগ্র দেশের মানুষ রীতিমত নাজেহাল হয়ে পড়েছিল। দেশের মানুষের কথা ভেবে ঠিক তখনই সরকারের পক্ষ থেকে ভারতের জন সাধারণের সুবিধার্থে বিনামুল্যে রেশন সামগ্রী দেওয়ার ঘোষনা করা হয়েছিলো। অতিমারির থেকে শুরু করে এখনও সেই বিনামুল্যে রেশন (free ration scheme) পরিসেবা কার্যকর রয়েছে।

Advertisement

ভারতের সাধারণ মানুষকে আর্থসামাজিক সুরক্ষা প্রধানের খাতিরেই বিনামুল্যে রেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল। চলতি বছরে করোনার সংক্রমণ কম হওয়ায় পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক। আর তাই চলতি বছরে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেবে কেন্দ্র সরকার এমনটাই শোনা যাচ্ছে। তবে এখনও সঠিক কিছু জানা যায়নি।

দেশজুড়ে উৎসবের মরসুম চলছে। আর এই উৎসবের আবহে সমগ্র বাংলার নাগরিকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে চলতি অক্টোবর মাসে রেশন অতিরিক্ত সামগ্রী দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে। কিন্তু অনেক নাগরিকই এখনও পর্যন্ত জানেন না ঠিক কি কি সামগ্রী দেওয়া হবে অথবা কোন কার্ডের অধীনে থাকা ব্যক্তিরা এই নতুন দ্রব্যগুলি কতটা পরিমাণে পাবেন।

Advertisement

তবে শোনা যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে বসবাসকারী যে সকল ব্যক্তিদের অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা কার্ড এবং SPHH কার্ড রয়েছে তারাই শুধুমাত্র রেশন দোকান থেকে চিনি, ময়দা এবং তেলের মতো অতিরিক্ত দ্রব্যগুলি ভর্তুকি সহকারে কম দামে কিনতে পারবেন। তবে যে সমস্ত ব্যক্তিদের অন্যান্য কার্ডগুলি রয়েছে তারা এই সমস্ত অতিরিক্ত দ্রব্যগুলি না পেলেও যে পরিমাণে রেশন পান সেই পরিমাণেই রেশন পাবেন। যদিও কিছু ক্ষেত্রে চাল ও গমের পরিমাণের পরিবর্তন হতে পারে।

কোন কোন কার্ডে এই অতিরিক্ত রেশন পাওয়া যাবে চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক?

১)অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা কার্ড:-

যে সকল পরিবারের সদস্যদের অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা কার্ড রয়েছে তারা পরিবার পিছু ২১ কেজি চাল, ১৪ কেজি গম অথবা ১৩ কেজি ৩০০ গ্রাম পুষ্টিযুক্ত আটা পাবেন। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনার অধীনে একটি পরিবারের প্রতিটি সদস্য ৩ কেজি ৭৫০ গ্রাম করে চাল এবং ১ কেজি ২৫০ গ্রাম করে চাল পাবেন। এর পাশাপাশি অতিরিক্ত দ্রব্য হিসেবে ১ কেজি করে চিনি পরিবার পিছু দেওয়া হবে।

তবে এই চিনি কেনার ক্ষেত্রে আপনাকে ১৩ টাকা ৫০ পয়সা প্রতি কেজি চিনির জন্য খরচ করতে হবে। এছাড়াও অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা কার্ডের অধীনে থাকা ব্যক্তিদের ময়দা, পাম তেল অথবা সর্ষের তেল, চিনি দেওয়া হবে।তবে এক্ষেত্রে এই দ্রব্যগুলি রেশন দোকান থেকে স্বল্পমূল্যে কিনে নিতে হবে।

ভর্তুকিযুক্ত ১ কেজি ময়দার জন্য আপনাকে মাত্র ২৯ টাকা খরচ করতে হবে। অন্যদিকে প্রতি কেজি ভর্তুকিযুক্ত চিনির দাম ৩২ টাকা। এর পাশাপাশি ১ লিটার কাচ্চি ঘানি সরষের তেলের জন্য ১৬৬ টাকা খরচ করতে হবে।আর ৫০০ মিলিলিটার তেলের দাম ৮৯ টাকা। এছাড়াও ১ লিটার পাম তেলের দাম রয়েছে ১৩৮ টাকা এবং ৫০০ মিলিলিটার পাম তেলের জন্য আপনাকে ৭০ টাকা খরচ করতে হবে।

২)SPHH কার্ড:-

যে সকল ব্যক্তিদের SPHH কার্ড রয়েছে তারা মাথাপিছু ৩ কেজি করে চাল, ১ কেজি ৯০০ গ্রাম পুষ্টিযুক্ত আটা অথবা ২ কেজি গম পাবেন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার কারণে SPHH কার্ডের আওতায় থাকা ব্যক্তিরা প্রত্যেকে ১ কেজি ২৫০ গ্রাম করে গম এবং ৩ কেজি ৭৫০ গ্রাম করে চাল পাবেন। এর পাশাপাশি অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনার অধীনে থাকা ব্যক্তিদের মতো SPHH কার্ডের অধীনে থাকা ব্যক্তিরাও ভর্তুকিযুক্ত চিনি, ময়দা এবং তেল পাবেন।

প্রতি কেজি ভর্তুকিযুক্ত ময়দার দাম মাত্র ২৯ টাকা। অন্যদিকে ১ কেজি ভর্তুকিযুক্ত চিনির জন্য নাগরিকদের মাত্র ৩২ টাকা খরচ করতে হবে।আর১ লিটার কাচ্চি ঘানি সরষের তেল মাত্র ১৬৬ টাকায় পাওয়া যাবে এবং ৫০০ মিলিলিটার তেল ৮৯ টাকায় পাওয়া যাবে। এছাড়াও এক লিটার পাম তেলের দাম ১৩৮ টাকা এবং ৫০০ মিলিলিটার পাম তেলের দাম মাত্র ৭০ টাকা রাখা হয়েছে।

৩)PHH কার্ড:-

যে সকল পরিবারের সদস্যদের PHH কার্ড রয়েছে সেই সকল পরিবারের সদস্যরা প্রত্যেকে ৩ কেজি করে চাল, ২ কেজি করে গম অথবা ১ কেজি ৯০০ গ্রাম করে পুষ্টিযুক্ত আটা পাবেন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনার খাতিরে যে সমস্ত পরিবারগুলির সদস্যদের PHH কার্ড রয়েছে তারা প্রত্যেকে ৩ কেজি ৭৫০ গ্রাম করে চাল এবং ১ কেজি ২৫০ গ্রাম করে গম পাবেন।

৪)RKSY-I কার্ড:-

যে সমস্ত ব্যক্তিদের রাজ্য খাদ্য সুরক্ষা যোজনার কার্ড রয়েছে অর্থাৎ RKSY-I কার্ড রয়েছে তারা মাথাপিছু ২ কেজি করে চাল, ৩ কেজি করে গম অথবা ২ কেজি ৮৫০ গ্রাম করে পুষ্টিযুক্ত আটা পাবেন। কিছুক্ষেত্রে গম অপর্যাপ্ত থাকলে নাগরিকদের গমের বদলে ৩ কেজি করে চাল দিয়ে দেওয়া হবে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের পক্ষ থেকে এমনটাই জানানো হয়েছে।

৫)RKSY-II কার্ড:-

যে সকল ব্যক্তিরা RKSY-II কার্ডের অধীনে রয়েছেন তারা এই অক্টোবর মাসে মাথাপিছু ১ কেজি করে চাল এবং ১ কেজি করে গম পাবেন। কোন ক্ষেত্রে গম অপর্যাপ্ত থাকলে খাদ্য ও সরবরাহ দপ্তরের নির্দেশ অনুসারে নাগরিকদের গমের বদলে ১ কেজি করে চাল দিয়ে দেওয়া হবে।

এই অতিরিক্ত দ্রব্যগুলি কত দিন পর্যন্ত রেশনে পাওয়া যাবে?

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রকাশিত নির্দেশিকা অনুসারে ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ তারিখ থেকে শুরু করে ৩০ শে অক্টোবর ২০২২ তারিখ পর্যন্ত রেশনে এই অতিরিক্ত দ্রব্যগুলি পাওয়া যাবে। দেশজুড়ে লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির মধ্যে জনসাধারনের জন্য এটি একটি অত্যন্ত ভাল খবর।

Written by Sunita Mallick

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

 Google News | | টেলিগ্রাম চ্যানেলে

Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক Webscte.in এ সকল প্রকারের চাকরি ও শিক্ষার খুঁটিনাটি খবর সহ এই সাইটে সরকারি প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles