Recruitment of Volunteers

Recruitment of Volunteers : বর্তমান সময়ে চাকরি খুঁজে পাওয়া একটা বড় সমস্যা। করোনা পরিস্থিতির পর বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত অনেকেই চাকরি হারিয়েছেন। সরকারি চাকরির যেহেতু নিরাপত্তা আছে, তাই সরকারি চাকরি পাওয়ার ঝোঁক অনেকটাই বাড়ছে।তবে বেকার যুবক-যুবতীদের একাংশের দাবি, রাজ্যে দীর্ঘদিন ধরে কর্মসংস্থানের সুযোগ নেই। পড়াশুনো শিখেও অনেকেই চাকরি পাচ্ছেন না। যারা বেশিদূর পড়াশুনো করতে পারেননি, তাদের অবস্থা আরও সঙ্গীন।করোনা মহামারির পর চাকরির বাজার আরও খারাপ হয়েছে।অনেকেই রুটিরুজির সংস্থান হারিয়েছে।তবে তাদের জন্য এবার বড় সুযোগ রয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গের শুধুমাত্র সপ্তম শ্রেণী পাস চাকরি প্রার্থীদের জন্য বিশাল বড় একটি চাকরির সুখবর। যে সমস্ত চাকরি প্রার্থী পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা এবং মাধ্যমিক পাস করতে পারেননি বা পাস করেছেন অথবা শুধুমাত্র সপ্তম শ্রেণি বা অষ্টম শ্রেণি পাশ করে আছেন তাদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে বিশাল বড় একটি চাকরির সুখবর নিয়ে আসা হয়েছে। এখানে প্রচুর পরিমাণে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে।

ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের সপ্তম শ্রেণি পাশে আপদ মিত্র প্রকল্পে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে কর্মী নিয়োগ করা হবে ভলেন্টিয়ার পদে।যে সমস্ত চাকরি প্রার্থী পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা এবং সরকারি চাকরির খোঁজ করছেন তারা অবশ্যই বিস্তারিতভাবে এই খবরটি জেনে নিতে পারেন।মহিলা, পুরুষ উভয়েই এই পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বেশ কিছুদিন আগে কালিংপং রাজ্যে এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছিল এবং আবারো রাজ্যে নতুন করে আরেকটি নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে এবং একে একে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় প্রত্যেকটি রাজ্যের এবং প্রত্যেকটি ব্লকেই এই কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে।

রাজ্যে আপদা মিত্র প্রকল্পে ট্রেনিং করিয়ে সিভিক ভলেন্টিয়ার পদে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। সপ্তম শ্রেণী পাশে আবেদন করতে পারবেন নিম্নে আবেদন পদ্ধতি, নিয়োগ পদ্ধতি, নিয়োগের স্থান সম্পর্কে বিশদে আলোচনা করা হলো।

পদের নামঃ-

আপদা মিত্র (ভলেন্টিয়ার)।

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ-

এই পদের ক্ষেত্রে প্রার্থীদের আবেদন করতে গেলে সপ্তম শ্রেণী উত্তীর্ণ হতে হবে। প্রার্থীদের শারীরিক এবং মানসিক দিক থেকে যথেষ্ট সবল হতে হবে, (এজন্য প্রার্থীদের চিকিৎসক প্রদত্ত সার্টিফিকেট আবশ্যিক)।

বয়সঃ-

এই পদের জন্য প্রার্থীদের বয়স ১ জুলাই ২০২২ অনুযায়ী ১৮ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে হতে হবে।অন্যান্য সংরক্ষিত শ্রেণির চাকরি প্রার্থীরা এখানে সরকারি নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ছাড় পাবেন।

আবেদন পদ্ধতিঃ-

প্রার্থীদের অফলাইনে এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। নিম্নে দেওয়া আবেদন পত্রটি নির্ভুলভাবে করে প্রয়োজনীয় নথিপত্র সংযোজন করে, একটি মুখবন্ধ খামে ভোরে নির্দিষ্ট ঠিকানায় গিয়ে জমা দিতে হবে। মুখ বন্ধ খামের উপর বড় হতে লিখতে হবে Application For The Post of (পদের নাম)। প্রার্থীকে অবশই নিজের হতে কালো বা নীল পেনে আবেদন করতে হবে।

প্রয়োজনীয় নথিপত্রঃ-

১) প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতার শংসাপত্র।
২) মেডিকেল সার্টিফিকেট।
৩) স্কাউট প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সার্টিফিকেট। (যেমন এনসিসি এনএসএস এন ওয়াই কে এস।)
৪) যে জেলা বা এলাকার বাসিন্দা সেখানকার
শংসাপত্র।

আবেদনপত্র জমা দেবার ঠিকানাঃ-

জেলাশাসক ও নিয়ন্ত্রণ অসামরিক প্রতিরক্ষা দপ্তর ঝাড়গ্রাম। ইচ্ছুক প্রার্থীদের সরাসরি গিয়ে আবেদন পত্র জমা দিতে হবে।

নিয়োগের স্থানঃ-

প্রার্থীদের ঝাড়গ্রাম জেলায় ভলেন্টিয়ার্স হিসেবে নিয়োগ করা হবে।

আবেদনপত্র জমা দেবার তারিখঃ-

১৭ জুন ২০২২ থেকে ০৮ জুলাই ২০২২ তারিখ মধ্যে প্রার্থীদের আবেদন করতে হবে।

নিয়োগ পদ্ধতিঃ-

ইচ্ছুক প্রার্থীদের অফলাইনের মধ্যে আবেদন করতে হবে। প্রার্থীদের নির্ভুল নথিপত্র যাচাই করে। নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে 12 দিনের প্রশিক্ষণ করিয়ে তাদের নিয়োগ করা হবে।

যে সমস্ত চাকরি প্রার্থীর এখানে চাকরি করতে ইচ্ছুক তারা অবশ্যই নির্দিষ্ট অফিশিয়াল নোটিফিকেশনটি ডাউনলোড করে ভালো করে পড়বেন। অফিশিয়াল নোটিফিকেশন এর মধ্যে আবেদনের ফরমটি দেওয়া আছে সেটি প্রিন্ট আউট করে ফিলাপ করে জমা দেবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.