টেটে আবেদনে ভুল হয়েছে বহু প্রার্থীর! তাদের আবেদনপত্র বাতিল হবে কি? জানাল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ | Primary TET 2022

পুজোর আগেই পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল ১১ হাজারেরও বেশি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতি গৌতম পাল জানিয়েছিলেন প্রতি বছর রাজ্যে প্রাথমিকের টেট পরীক্ষা (Primary TET 2022) হবে।স্বছতার সাথেই চাকরি প্রার্থীদের প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগ করা হবে।

আমাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন যারা টেটে আবেদনে ভুল করেছেন, তাদের আবেদনপত্র বাতিল হবে কি? বা তারা আর আবেদন করতে পারবে কিনা? তার জন্য পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন।

Advertisement

সেই অনুযায়ী গত ২৯ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক স্কুলে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি (Primary TET 2022) জারি করেছিল পর্ষদ। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে ডিএলএড-এর পাশাপাশি বিএড যোগ্যতা সম্পন্ন প্রার্থীরাও প্রাথমিক শিক্ষক পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন। পরে অবশ্য কয়েক দফায় বিজ্ঞপ্তি পরিবর্তন করা হয়েছে।

১৪ ই অক্টোবর থেকে ইতিমধ্যেই প্রাথমিকের টিচার্স এলিজিবিলিটি টেস্টে (টেট)এর আবেদন গ্রহণ শুরু হয়েছে। এই আবেদন প্রক্রিয়া ৩ নভেম্বর রাত ১২ টা পর্যন্ত চলবে। ইতিমধ্যেই কয়েক লক্ষ আবেদনপত্র জমা পড়েছে। চাকরি প্রার্থীরা আবেদন করলেও অনেক প্রার্থীই আবেদনে ভুল করেছেন। কেউ হয়তো জন্ম তারিখ লিখতে, কেউ আবার শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পর্কিত তথ্য প্রদানে ভুল করেছেন।

Advertisement

আর এই নিয়ে চাকরি প্রার্থীরা বড়ো সমস্যায় পড়েছেন। আবেদন করতে গিয়ে বেশিরভাগ প্রার্থীই কোনো না কোনো ভুল করেছেন। আর এখন তাঁরা সেই ভুল সংশোধন করে নির্ভুলভাবে আবেদন করার জন্য অপেক্ষা করছেন। আবেদনপত্রে ভুল করলে চিন্তিত হবার কথাই। কারণ তথ্য প্রদানে ভুল থাকলে পরবর্তীকালে ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের সময় নিয়োগের ক্ষেত্রে তাঁরা সমস্যার মুখে পড়তে পারেন।

এমনকি এই ভুল তথ্য প্রদানের অভিযোগে প্রার্থীর নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিলও হয়ে যেতে পারে। তাই ভুল আবেদন করা নিয়ে তাঁরা দুশ্চিন্তায় রয়েছে। অবশ্য তাঁদের এই উদ্বেগের যথেষ্ট কারন রয়েছে। অনেকেই আবেদনে ভুল করে এখন হাত কামড়াচ্ছেন। বেশ বড় সংখ্যক প্রার্থীই কিছু না কিছু ভুল করেছেন। ফলে তাঁরা এখন সংশোধনের অপেক্ষায় রয়েছে

আবেদনে ভুল প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে পর্ষদের এক কর্তা বলেন এই বিষয় নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি, ভাবনাচিন্তা চলছে। কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হলেও, ভবিষ্যতে একটা সংশোধনীর সুযোগ প্রার্থীদের দেওয়া হবে। কারন পূর্বের পরীক্ষাগুলোর আবেদনের ক্ষেত্রে প্রার্থীরা সংশোধন করার সুযোগ পেত। কিন্তু এক্ষেত্রে সমস্ত তথ্য সংশোধনের সুযোগ তাঁরা পাবেন না। কারন হাতে সময় খুব কম। এবার চলতি বছরের ১১ ডিসেম্বর পরিক্ষা হতে চলেছে।

তাই হাতে খুব একটা বেশি সময় নেই। তবে নতুন ফোন নম্বর দিয়ে রেজিস্টেশন করে ফের আবেদন জানানো যেতে পারে বলে পর্ষদের অন্দর থেকে এমনই খবর জানা যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে অবশ্য অ্যাপ্লিকেশন ফি নতুন করে দিতে হবে। সঠিক অ্যাডমিট কার্ড নিয়েই প্রার্থীরা টেট পরীক্ষায় বসতে পারবেন।

আরও পড়ুন

গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

Telegram Channel যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন
WhatsApp Group-এ যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন
Google News যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন

Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *