Love life of Rashmika

Love life of Rashmika: ভারতে বহু যুগ আগে থেকেই সিনেমার প্রচলন শুরু হয়েছে। ভারতে সিনেমা প্রেমিদের সংখ্যা নেহাত কম নয়। সিনেমা দেখতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া হয়ত দুষ্কর। আগের দিনে একটা সময় ছিল নতুন কোন সিনেমা রিলিজ করলেই সিনেমা হলের সামনে মানুষের লাইন লেগে যেত। আবার কেউ কেউ হয়ত টিকিটের অভাবে সিনেমাটাই দেখতে পেত না।

তবে বর্তমানে প্রযুক্তির যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে। তার সাথে সাথে আমাদের জীবন ধারাও ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। তার কারন এখন আমাদের প্রায় সকলের হাতেই স্মার্টফোন রয়েছে। আর এই স্মার্টফোন থাকার কারনে এখন আর নতুন সিনেমা দেখার জন্য কাউকেই সিনেমা হলের সামনে লাইন দিতে হয় না। এই স্মার্টফোনের বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে যখন তখন নতুন সিনেমা দেখা যায়।তবে করোনা চলাকালীন অনলাইনে সিনেমা দেখার প্রবণতা সকলের আর বেড়ে গিয়েছে।

Study Attentively: পড়াশোনায় মনোযোগী হতে পারছেন না?মনোযোগী হবার বিজ্ঞান সম্মত সহজ উপায় জানুন

সিনেমা প্রেমীদের আগ্রহের অন্যতম কেন্দ্র বিন্দু হল বলিউড ইন্ডাস্ট্রি। বলিউড সিনেমা সিনেমা দেখতে সকলেই পছন্দ করেন। আর বলিউড স্টারদের জনপ্রিয়তা তো এমনিতেই তুঙ্গে। আর বলি স্টারদের জন্যই বলিউডের ছবির জনপ্রিয়তা বেশি। এতদিন পর্যন্ত ভারতীয় সিনেমায় আধিপত্য বিস্তার করে রেখেছিল বলিউড অর্থাৎ হিন্দি সিনেমার ইন্ডাস্ট্রি।

একের পর এক হিট ফিল্মের মাধ্যমে গোটা দেশে জনপ্রিয়তার শীর্ষে ছিল বলি ইন্ডাস্ট্রি। তবে শেষ কয়েক বছরে এই ট্রেন্ডে অনেকটাই পরিবর্তন হয়েছে। ধীরে ধীরে বলি সিনেমার চাকচিক্য ছেড়ে দর্শকদের কাছে বেশি পছন্দের হয়ে উঠেছে দক্ষিণের ফিল্মগুলি। বলিউডকে জোরদার টক্কর দিয়েছে দক্ষিণের ফিল্ম জগত, তথা দক্ষিণের স্টাররা।

Dear Lottery Wining Tips: পশ্চিমবঙ্গ ডিয়ার লটারি জেতার গোপন কৌশল ফলো করে ম্যাজিক দেখুন

অতিমারীর পর বক্স অফিসে বলিউড সিনেমার তুলনায় ব্যবসার নিরীখে দক্ষিণী ছবিগুলোর মার্কেট বেশি ঝকঝকে। সেই তুলনায় বলিউডি ছবির মার্কেট অনেকটাই কম। এই মুহূর্তে বক্স অফিস কালেকশনের কারণে প্রায় ফুলে ফেঁপে উঠেছে দক্ষিণী ছবির (South Indian Films) ভাঁড়ার।তবে গত কয়েক বছরে দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি বলিউডকে কঠিন প্রতিযোগিতা দিয়েছে।

বলিউড বনাম দক্ষিণী ছবির সুপ্ত লড়াই বেশ কিছুদিন ধরেই যেন দাবানলের আকার নিয়েছে। বিগত দুবছরে সাউথের ছবির সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার বিষয়ে অনেকটা পিছিয়ে রয়েছে বলিউড ছবি। আর এবছর পরপর তিনটি ব্লক বাস্টার হিট – RRR”, ‘KGF 2’ এবং ‘পুষ্পা দ্যা রাইস’ ছবির আকাশ ছোঁয়া সাফল্য যেন বলিউডকে হেলিয়ে রেখে দিয়েছে।

Green Crackers: এবারের পুজোয় বাজি ফুটাতে পারবেন কী? এই রাজ্যে কোন বাজি তৈরির ছাড়পত্র দেওয়া হল দেখুন

বর্তমান সময়ে সাউথ ইন্ডিয়ার সিনেমা সারা ভারতবর্ষে ব্যাপক আধিপত্য বিস্তার করেছে। যার দরুন সাউথ ইন্ডিয়ার নায়ক এবং নায়িকারা খুবই খ্যাতি লাভ করেছে। বর্তমান সময়ে এই সাউথ ইন্ডিয়ার নায়িকাদের মধ্যে অন্যতম একজন হলেন রাশমিকা মান্দানা। বর্তমানে ভারতের ক্রাশ যদি কেউ হয়ে থাকে তাহলে রাশমিকার কথাই সবার প্রথম মাথায় আসে।

রাশমিকা (Love life of Rashmika) একের পর এক সুপারহিট সিনেমার মাধ্যমে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। তার বর্তমান সিনেমা পুস্পা তো বক্স অফিসে আগুন লাগিয়ে দিয়েছিল। পুস্পা ছবিটির মধ্যে আল্লু অর্জুনের প্রেমিকা হয়েছেন তিনি। দর্শকরা তার অভিনয়ের সাথে সাথে দুজনের রসালো কেমিস্ট্রিও খুব পছন্দ করেছেন। তিনি এখন সারা ভারতবর্ষে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

পুষ্পার আল্লু অর্জুন ছাড়াও বিজয় দেবরাকোন্ডার সাথেও তিনি হিট সিনেমা করেছেন। কিন্তু যতই তিনি জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন ততই তাকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য উঠে আসছে। তার এই ক্রাশ হয়ে ওঠার পেছনে যে গুপ্ত সংবাদ রয়েছে সেটি কিন্তু আপনাদের সকলের হুশ উড়িয়ে দিতে পারে। সম্প্রতি ভারতের এক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে রাশমিকার অনুরাগীরা বারবার গুগল সার্চ করার কারণেই তিনি ইতিমধ্যে ‘জাতীয় ক্রাশ’ উপাধি পেয়ে গেছেন।

Make Money Online: বাড়িতে বসে অনলাইনে মোটা টাকা আয় করার সহজ কিছু উপায় জেনে নিন

রাশমিকার ভক্তরা প্রতিনিয়ত তার প্রেম জীবন সম্পর্কে জানতে চান।তাই অভিনেত্রী নিজের অতীত সম্পর্কের অবশেষে মুখ খুললেন। ভক্তদের তার অতীত সম্পর্কে জানালেন। কারন তার ভক্তরা প্রতিনিয়ত তার প্রেম জীবন সম্পর্কে জানার জন্য গুগলে সার্চ করে। তাই তিনি তার ভক্তদের নিরাশ না করে অবশেষে সংবাদ মাধ্যমের কাছে স্পষ্ট ভাবে সমস্ত কথা প্রকাশ করলেন।

অভিনেত্রী বলেছেন যে ভারতের কর্নাটকি সিনেমার অভিনেতা ও পরিচালক রক্ষিত শেঠির সঙ্গে রাশমিকা সম্পর্ক ছিল। ‘কিরিক পার্টি’ ছবির সেটে তাদের দুজনের পরিচয় হয়। সেখান থেকে প্রেম শুরু হয়েছিল। বেশ কিছু দিন সম্পর্ক ছিল রাশমিকা ও রক্ষিতের।দুজনের একসঙ্গে নানা রকম ছবিও আছে। এমনকি বিয়ে করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তারা। ২০১৭ সালের ৩ জুলাই তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে আংটিবদল হয়।

কিন্তু বছরখানেক পর দু’জনের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। তার কারণ অবশ্য জানা যায়নি।রাশমিকা বলেন যে তিনি সবটুকু দিয়েই তাকে ভালোবাসতেন। তিনি এও বলেছেন যে সবাই বলে আমরা খুবই ভালো আছি, কোন কিছুতেই আমাদের কিছু যায় আসে না। কিন্তু সত্যি কথা হল এই পৃথিবীতে কেউই ভালো নেই সবাই কিছু না কিছু নিয়ে চিন্তিত থাকে।

তাদের সম্পর্কটা ভাঙার জন্য ভক্তরা অবশ্য রাশমিকাকেই দায়ী করেছিলেন।তবে প্রেমিকার পক্ষে রক্ষিত শেঠি নিয়েছিলেন। প্রাক্তন প্রেমিক এই প্রসঙ্গে বলেছিলেন যে রাশমিকাকে আমি দুবছর ধরে চিনি, সেটি তোমাদের অনেকের চেয়ে বেশি। কেন সে এমন করল, তার নিশ্চয়ই কোনও যৌক্তিক কারণ রয়েছে। এভাবে রাশমিকার দোষ দেওয়া ঠিক হচ্ছে না, তাই তাকে দোষারোপ করা বন্ধ করুন।

এছাড়াও তার অনেকে ভুক্তরা দাবি করেছেন যে চিত্রনাট্যকার চিরঞ্জীব মাকনার সঙ্গেও রাশমিকার অল্প কিছু দিন সম্পর্ক ছিল। কারন গুগলে তার অনেক ছবি রয়েছে।তাই কিছু কিছু মানুষ মনে করেন যে ওনার সাথে মাখো মাখো সম্পর্ক ছিল। এখন আবার শোনা যাচ্ছে আরেক দক্ষিণী তারকা বিজয় দেবারাকোন্ডার সঙ্গে নাকি রাশমিকার প্রেম (Love life of Rashmika)।

সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমের কাছে কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ পেয়েছে যে তারা নাকি চুপি চুপি একসাথে জিমে যেতেন। এমনকি একসাথে একি ঘরে রাতও নাকি কাটিয়েছেন। কিন্তু এই সম্পর্ক নিয়ে তাদের মধ্যে কেউই মুখ খোলেনি। তারা দুজনে একসঙ্গে ‘ডিয়ার কমরেড’, ‘গীত গোবিন্দম’-এর মতো প্রেমের ছবিতে অভিনয় করেছেন।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে রাশমিকা বলেছেন আমার কাছে ভালোবাসা মানে সব সময় পরস্পরের পাশে থাকা ও একে অপরকে সন্মান জানানো। ভালোবাসার মানুষের সঙ্গে সুরক্ষিত বোধ করা যায়। তিনি আরও বলেন যে ভালোবাসা এমন একটা অনুভূতি, যা ভাষায় বোঝানো সম্ভব নয়। তবে রাশমিকার প্রেমের এই সব তথ্য কতটা সত্যি না মিথ্যা তা বলা সম্ভব হচ্ছে না।

By Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.