রাজ্যের মা বোনদের জন্য সুখবর! এবার ৫০০ না ৭৫০ টাকা করে পাবেন লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে সিদ্ধান্ত মুখ্যমন্ত্রীর | West Bengal Lakshmi Bhandar New Update

সাধারণ ক্যাটাগরির মহিলারা এবার থেকে মাসে ৭৫০ টাকা পাবেন।আর তপশিলি জাতী উপজাতির মহিলারা মাসে ১২৫০ টাকা

মমতাময়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মূল লক্ষ্যই হলো রাজ্যের মানুষের উন্নতি সাধন করা। ইতিমধ্যেই গোটা রাজ্যের মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নতির কথা মাথায় রেখে প্রায় ৭০ টির ওপরে জনমুখি প্রকল্প চালু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। বিগত কয়েক বছর ধরে এই জনমুখি প্রকল্পগুলির কাজও জোর কদমে চলছে। এই প্রকল্পগুলির সুবিধা পাচ্ছেন গোটা রাজ্যের মানুষ।

মা, মাটি, মানুষ এই স্লোগানকে হাতিয়ার করেই রাজ্যে নিজের স্থান ধরে রেখেছেন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী। তৃতীয়বার রাজ্যে ক্ষমতায় আসার আগে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নামক প্রকল্পের কথা ঘোষনা করেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। যেমন ঘোষনা তেমন কাজ। রাজ্যের মহিলাদের আর্থিক ভাবে স্বনির্ভর করে তুলতে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প চালু করেন।

Advertisement

বর্তমানে ২৫ থেকে শুরু করে ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত সমস্ত মহিলারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন। এই প্রকল্পে তফসিলি জাতি এবং উপজাতির মহিলারা প্রতি মাসে ১০০০ টাকা করে পাচ্ছেন। আর সাধারণ শ্রেণির মহিলারা প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে পাচ্ছেন। মুখ্যমন্ত্রীর আসল ভোট ব্যাঙ্কের চাবিকাঠি রাজ্যের মহিলা বা মায়েদের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে। তাই মহিলাদের উন্নতির দিকে মুখ্যমন্ত্রীর নজর সর্বাগ্রে রয়েছে।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে পঞ্চায়েত ভোটের আগে রাজ্য সরকার জনমুখী প্রকল্পগুলির বাজেট বরাদ্দ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর ফলে সাধারণ মহিলাদের মাসিক বরাদ্দও বাড়তে পারে। সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এই বিষয়ে পাকাপাকি সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। এই গোটা বিষয়টি সিলমোহর দেবেন মুখ্যমন্ত্রী

সাম্প্রতিক অগ্নি মুল্যের বাজারে ৫০০-১০০০ টাকায় কি হয়। সেই চিন্তা করেই নাকি লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের টাকা বৃদ্ধির (West Bengal Lakshmi Bhandar New Update) সিদ্ধান্ত নিচ্ছে রাজ্য সরকার। যদি এই প্রকল্পের টাকা বাড়ানো হয় তাহলে সাধারণ ক্যাটাগরির মহিলারা এবার থেকে মাসে ৭৫০ টাকা পাবেন।আর তপশিলি জাতী উপজাতির মহিলারা মাসে ১২৫০ টাকা পাবেন।সরকারি বিজ্ঞপ্তি জেলায় জেলায় এসে পৌঁছালেই রাজ্যের মহিলারা এই বাড়তি টাকা পাবেন। এখন শুধু অর্থ দফতরের অনুমোদন আর মুখ্যমন্ত্রীর শীলমোহরের অপেক্ষা।

মূলত আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে থাকা পরিবারগুলির প্রধান মহিলা সদস্যের হাতে প্রতি মাসে অর্থ সাহায্য তুলে দেওয়ায় লক্ষ্যেই রাজ্য সরকার গত বছর এই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প চালু করেছিলেন। তবে এই লক্ষ্মীর ভান্ডার নিয়েও দুর্নীতির শেষ নেই। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার নিয়ে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগ উঠেছে কেউ কেউ জাল সংশাপত্র দেখিয়ে এমনকি বয়স বাড়িয়ে এই প্রকল্পের সুবিধা ভোগ করছেন। আবার কেউ অন্যান্য প্রকল্পের আর্থিক সুবিধা পাওয়া সত্ত্বেও এই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের সুবিধা নিচ্ছেন।তবে এবার তারা মহা বিপদে পড়তে চলেছেন। কারন এবার থেকে সঠিক কাগজ পত্র দেখাতে না পারলে ওই সব মহিলারা আর লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের টাকা পাবেন না। লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের দুর্নীতি আটকাতে রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে।

গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

Telegram Channel যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন
Google News যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন

Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক Webscte.in এ সকল প্রকারের চাকরি ও শিক্ষার খুঁটিনাটি খবর সহ এই সাইটে সরকারি প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *