Study Attentively

Study Attentively: আমাদের জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল পড়াশোনা। আমাদের জীবনে ও সমাজে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার একটি অন্যতম মাধ্যম হল পড়াশোনা। অন্যদের সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে চলার জন্য, নিজেকে এক উচ্চ স্তরে নিয়ে যাওয়ার জন্য পড়াশোনা খুব জরুরি। পড়াশোনা আমাদের নতুন কিছু শেখায়। আমরা প্রত্যেকেই পড়াশোনা করি, কেউ পড়াশোনা করে জ্ঞান বৃদ্ধি পাবার জন্য,আবার কেউ পড়াশোনা করে শুধু ডিগ্রি লাভ করার উদ্দেশ্যে, আবার কেউ ভালো চাকরি পাওয়ার আশায় পড়াশোনা করে।

আমরা প্রত্যেকেই নিজেদের জীবনে প্রতিটি কাজের পেছনে একটি আশা রাখি, আর এই স্বপ্ন বা আশার পরিপূর্ণতা দেয় পড়াশোনা। কিছু জানার মাধ্যমে বা শেখার মাধ্যমে নতুন কিছু নিয়ে চিন্তা করতে সাহায্য করে পড়াশোনা, এর মাধ্যমেই আমরা জীবনে নানা কল্পনা করতে আরম্ভ করি, আর জীবনে দাঁড়াতে হলে লেখাপড়া করাটা খুব দরকারি।

Dear Lottery Wining Tips: পশ্চিমবঙ্গ ডিয়ার লটারি জেতার গোপন কৌশল ফলো করে ম্যাজিক দেখুন

এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা খুব কম পড়াশোনা করেও অনেক উঁচু স্থান অধিকার করেছেন। কারন তারা এই পড়াশোনা করার নেশা মত্ত হয়ে কাজ করে গেছেন। বর্তমান নিজেকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যেতে চাইলে পড়াশোনা ছাড়া কোন বিকল্প নেই। তবে অনেক শিক্ষার্থীদের জন্য দুনিয়ার সব চেয়ে বড় ঝামেলার কাজ হলো পড়ালেখা করা। অনেকে শিক্ষার্থীই একটিই সমস্যা পড়ালেখায় মন বসে না।

সত্যি কথা বলতে পড়াশোনা করতে অনেকেরই ভাল লাগে না। পড়াশোনা করার জন্য টেবিলে পড়তে বসলেই মনোযোগ যেন কোথায় হারিয়ে যায়। তখন মনে নানা রকম চিন্তা আসে, কিন্তু পড়াশোনায় মনোযোগ দিলেই ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার অথবা অধ্যাপক হওয়া সম্ভব। প্রকৃতপক্ষে পড়াশোনায় মনোযোগ না আসলেও, পড়াশোনায় মন বসিয়ে নিয়ে পড়াশোনা করতে হয়। তাহলেই আপনি ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার অথবা অধ্যাপক হতে পারবেন।

Green Crackers: এবারের পুজোয় বাজি ফুটাতে পারবেন কী? এই রাজ্যে কোন বাজি তৈরির ছাড়পত্র দেওয়া হল দেখুন

আপনিও কি পড়াশোনায় মনোযোগী হতে চাইছেন কিন্তু পারছেন না? পড়তে বসলেই হয়ত ঘুম চলে আসে, আর মাথায় এসে ভরকরে পৃথিবীর সমস্ত চিন্তা। তাই সারা দিন পড়ার টেবিলে বসে ও আর পড়া শেষ হয় না।তাই এখন পাগলের মতো পড়ালেখায় মনোযোগী হওয়ার উপায় খুজছেন কি? তাহলে আর চিন্তা করার কোন কারিন নেই। কারন আজ আমরা পড়ালেখায় মনোযোগী হওয়ার কিছু বিজ্ঞান্সম্মত সহজ পন্থা আলোচনা করতে চলেছি।

তাহলে এই উপায়গুলি জেনে নেওয়া যাক-

১)লক্ষ্য স্থির করা:-

জীবনের যে কোনো কাজের ক্ষেত্রেই আমাদের প্রধান চিন্তা হওয়া উচিত আমরা ঠিক কোন উদ্যেশ্যে এগোচ্ছি। আর সেই লক্ষ্যের দিকে তাকিয়ে সেভাবেই নিজেকে চালনা করা উচিত । লক্ষ্যভ্রষ্ট ব্যক্তি কখনোই পড়াশোনায় মন বসাতে পারেনা।তাই সবার আগে লক্ষ্য স্থির করা দরকার।

Make Money Online: বাড়িতে বসে অনলাইনে মোটা টাকা আয় করার সহজ কিছু উপায় জেনে নিন

২)রুটিন করে পড়ার অভ্যেস :-

নির্দিষ্ট সময় সূর্য ওঠে, আবার নির্দিষ্ট সময় অস্তও যায়।যার ফলে সমতা বজায় থাকে। সেই কারণেই পড়াশোনার ক্ষেত্রেও একটি নির্দিষ্ট রুটিন মেনে চললে সেক্ষেত্রে সফলতা পাওয়া যায়। তবে রুটিন তৈরির ক্ষেত্রে অবশ্যই নিজের পছন্দমত ঠিক করতে হবে। তবে মাঝে মাঝে খানিকটা বিরতিও রাখতে হবে।

৩)টার্গেট বা কোনো মিশন নিয়ে পড়া:-

পড়াশোনার ক্ষেত্রে একঘেয়েমি ভাবে পড়াশোনা না করে একটি করে মিশন ফিক্সড করা জরুরি। তাহলে মনযোগী হতে পারবেন।

৪)ব্যায়াম বা খেলাধূলা করা:-

নিজে শারীরিক ভাবে সুস্থ সবল থাকাও পড়াশোনাতে আগ্রহ বাড়ায়।আর বিকেলের সময়টাতে তাই পড়াশোনার পরিবর্তে খেলাধুলা করাই শ্রেয়।আবার নির্দিষ্ট সময় মত পড়াশোনা করুন।

৫)পর্যাপ্ত ঘুম:-

একজন মানুষের দিনে সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন। শরীরে পর্যাপ্ত ঘুমের ভীষণ প্রয়োজন। আর তা নাহলে সারাদিন পড়াশোনা করতে গেলেই বিরক্তি ভাব গ্রাস করবে ফলে পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটবে।তাই পর্যাপ্ত ঘুম ভীষণ প্রয়োজন।

৬)যখন মনোযোগ বসে তখন পড়া:-

পড়াশোনার জন্য আপনি আপনার মতো করে সময়টা নির্ধারিত করবেন।গভীর রাতে নাকি ভোরের শান্ত পরিবেশে আপনার পড়তে ভালো লাগছে সেই সময়টাই নির্ধারিত করবেন।

By Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.