Fixed Deposit Interest Rates

Fixed Deposit Interest Rates: বর্তমানে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রির যে হারে মুল্যবৃদ্ধি হচ্ছে,তাতে সাধারন মানুষ সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন। বর্তমানে বিশ্বে টাকার গুরুত্ব যে কি তা আমরা সকলেই জানি।আমরা যতই বেশি টাকা আয় করিনা কেন, আমাদের হাত থেকে অপ্রয়োজনীয় টাকার খরচ হয়েই থাকে। বিভিন্ন রকমের সাংসারিক খরচ বা নিজের কোন ইচ্ছে পূরণ করতে গিয়েই হয়ত সব টাকা শেষ হয়ে যায় অনেকের।

রেলের গ্রুপ ডি 2022 Railway Group D Revision Set-01 Question and Answer Paper 2022

আপনি যা রোজগার করছেন তার সবটাই হয়ত খরচ হয়ে যাচ্ছে। মাসের শুরুতে আপনি একটা হিসাব ধরে রেখেছিলেন, কিন্তু মাসের শেষে সেই হিসেব কোথায় ভেসে চলে গেছে। সেটা আপনি হয়ত বুঝতেও পারলেন না কীভাবে টাকা খরচ হয়ে গেল। আর মাসের শেষে এসে মাথায় হাত। এর ফলেই শেষে গিয়ে আমরা আমাদের ভবিষ্যতের জন্য টাকা জমিয়ে রাখতে পারিনা।

Primary TET Scam: বড় খবর! এবার ২০১২ ও ২০১৪ সালের টেটের ভিত্তিতে নিযুক্ত শিক্ষকদের এক বড় অংশ বিপদে পড়তে চলেছেন

বয়স বাড়ার সাথে সাথে প্রত্যেকেরই দায়িত্ব বদলায়। সেই সাথে পাল্টায় লক্ষ্য।তাই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই একটু একটু করে সঞ্চয় করা দরকার। কারন ভবিষ্যতে আপনার জীবনে যদি কোনো বিপদ বা সমস্যা আসে, তখন অন্যের কাছে হাত পাতা ছাড়া আপনার কাছে আর কোনো উপায় থাকেনা। তাই আগে থেকেই ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করে রাখলে, আপনি আর্থিক ভাবে চিন্তামুক্ত হয়ে থাকবেন। তখন আপনার জন্য আপনার ভবিষ্যৎ জীবন অনেক সুন্দর হয়ে দাঁড়াবে।

WBCHSE Exam 2023: পরীক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য আগামী বছরের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা নিয়ে বড় ঘোষনা

তবে সকলেই টাকা সঞ্চয় করার এমন একটি প্রকল্প খুঁজতে থাকেন যেখানে নির্দিষ্ট সময় সীমার পরে ভালো রিটার্ন (Fixed Deposit Interest Rates ) পাওয়া যায়। সকলেই নিরাপদ, নিশ্চিন্ত এবং সুরক্ষার সাথে উচ্চহারে রিটার্ন পাওয়ার মত স্কিমের খোঁজ করতে থাকেন। ঠিক সেরকমই একটি বিনিয়োগের মাধ্যম হল ব্যাংকের ফিক্সড ডিপোজিট (Fixed Deposit Interest Rates)স্কিম।

এই স্কিমে অল্প পরিমাণে টাকা সঞ্চয় করলেও নির্দিষ্ট মেয়াদের পরে ভালো রিটার্ন পাওয়া যেতে পারে। রিজার্ভ ব্যাংক রেপো রেট বৃদ্ধি করার পর থেকেই দেশের ছোট বড় সমস্ত ব্যাংক FD এবং RD-র ক্ষেত্রে সুদের হার বাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে গ্রাহকেরা এই FD এবং RD তে টাকা বিনিয়োগ করলে উচ্চ হারে রিটার্ন পেতে পারেন।

Child’s Mobile Phone Addiction: আপনার সন্তান মোবাইল ফোনের আসক্তি কি? তাহলে এই 4 টি উপায় অবলম্বন করলে কমবে

কোন কোন ব্যাংক সুদের হার বাড়িয়েছে দেখে নিনঃ-

SBI,HDFCও ICICI ব্যাংকঃ- দেশের যে সমস্ত বড় ব্যাংক রয়েছে যেমন- স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI) এইচডিএফসি ব্যাংক (HDFC) এবং আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক(ICICI) ইতিমধ্যেই ব্যাংক FD-র ক্ষেত্রে সুদের হার অনেকটাই বৃদ্ধি করেছে। এই সব বড় ব্যাংকের পাশাপাশি ছোট ব্যাংক এবং আর্থিক সংস্থাগুলিও FD- তে সুদের হার বাড়িয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে প্রবীণ নাগরিকেরা অনেক ব্যাংকেই প্ৰায় ৪ শতাংশের উপরেও সুদ পাচ্ছেন। যেমন –

Jana Small Finance Bank:-

এই ব্যাংকে 7 দিন থেকে 10 বছর সময়সীমার জন্য স্কিম রয়েছে। এই ব্যাংকে গ্রাহকদের জন্য 3.30 শতাংশ থেকে 8.15 শতাংশ পর্যন্ত সুদের হার অফার করা হচ্ছে। 3 বছর থেকে 5 বছর মেয়াদী FD-র ক্ষেত্রে 8.15 শতাংশ সুদ দেওয়া হচ্ছে। প্রবীণ নাগরিকেরা আরও বেশি সুদ পাচ্ছেন।

Incare Small Finance Bank FD-র ক্ষেত্রে:-

এই ব্যাংক গ্রাহকদের ৪% সুদ প্রদান করছে। 2 কোটি টাকার কম FD-র ক্ষেত্রে সুদের হার বাড়ানো হয়েছে। 1000 দিনের FD-র ম্যাচুরিটির ক্ষেত্রে এই সুদের হার দেওয়া হচ্ছে।

Mahabir Co-operative Urban Bank:- এই ব্যাংকে বিভিন্ন ধরনের আমানতের স্কিম রয়েছে। এরাও গ্রাহকদের জন্য ৪% পর্যন্ত রিটার্ন প্রদান করছে। 5 বছরের বেশি মেয়াদের FD- তে প্ৰবীণ নাগরিকদের ৪% সুদ (Fixed Deposit Interest Rates) দেওয়া হচ্ছে।

Suryoday Small Finance Bank :- এই ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য FD-তে ৪% পর্যন্ত রিটার্ন দিচ্ছে। 1000 দিনের কম বা 999 দিন মেয়াদের ED-র ক্ষেত্রে প্রবীণ নাগরিকদের জন্য ৪% এর একটু কম 7.99 শতাংশ রিটার্ন দেওয়া হচ্ছে।

ESAF Small Finance Bank:- এই ব্যাংক সাধারণ গ্রাহকদের জন্য 7.25 শতাংশ এবং প্রবীণ নাগরিকদের জন্য 7.75 শতাংশ সুদ দিচ্ছে। এখানেও বিভিন্ন ধরনের স্থায়ী আমানতের প্রকল্প রয়েছে।

North East Small Finance Bank:- এই ব্যাংক রেপো রেট বৃদ্ধি করার পরে FD-র ক্ষেত্রে সুদের হার বাড়িয়েছে। সর্বোচ্চ সুদের হার 7.5% পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে। 181 দিন থেকে 1 বছর সময়সীমার FD-র ক্ষেত্রে 5.50 শতাংশ সুদ দেওয়া হচ্ছে। 777 দিনে যে FD ম্যাচুরিটি হচ্ছে, সেখানে 7.50 শতাংশ সুদ দেওয়া হচ্ছে। আবার 1826 দিন থেকে 3650 পর্যন্ত FD-র ক্ষেত্রে এই ব্যাংক 6.75 শতাংশ সুদ প্রদান করছে।

আমাদের প্রত্যেকেরই ভবিষ্যৎ সুন্দর করার জন্য অর্থ সঞ্চয় করাটা খুবই জরুরি। যাতে ভবিষ্যতে কোন কারণে অর্থের সমস্যা হলে সঞ্চয় করা অর্থ দিয়ে সেই সমস্যা দূর করা যায়।তাই আপনিও যদি নিজের এবং পরিবারের ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতে চান তাহলে আর দেরি না করে এক্ষুনি সঞ্চয় শুরু করে দিন।

By Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.