Central Government New Scheme: কেন্দ্রীয় সরকারের বড় চমক! ঘরে বসেই প্রতিমাসে অ্যাকাউন্টে আসবে ২১,০০০ টাকা, কিভাবে জানুন

Central Government New Scheme: বর্তমানের সঞ্চয়ই সুরক্ষিত ভবিষ্যত জীবনের চাবিকাঠি। তাই ভবিষ্যত সুরক্ষিত করতে সঞ্চয় অত্যন্ত জরুরী। অনেকে চাকরি জীবনে দুহাত ভরে উপার্জন করে নিজের মতো করে জীবনযাপন করেন। কিন্তু অবসরের পরে কি হবে তা ভুলে যান।বর্তমানের সঞ্চয়ই ভবিষ্যত সুরক্ষিত করতে পারে। তাই সঞ্চয় করা খুব জরুরী। যা ভবিষ্যতে আপনার অবসরকালীন অবস্থায় স্থায়ী মাসিক আয় উপার্জনে আপনাকে সাহায্য করবে।

আবার অনেকে এমনও আছেন যারা নিজের ও পরিবারের ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতে সঞ্চয় করতে চান, কিন্তু নানা কারনে তা আর হয়ে উঠে না। আর সঞ্চয় করবেনি বা কিভাবে বর্তমান অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে সংসার খরচ চালানোই দায়। তার ওপর আবার সঞ্চয় করা খুব কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

Advertisement

অবশেষে কাটল জট! পুজোর আগেই প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পেতে চলেছেন চাকরিপ্রার্থীরা

তাই প্রত্যেকেই চান যদি বাড়তি কিছু টাকা আয় করা যায়, তাহলে তা ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করে রাখবেন। তবে অনেকে আবার বুঝে উঠতে পারেন না কোথায় সঞ্চয় করলে বেশি লাভ হবে। আর তাছাড়া সকলেই ঝুঁকিহীন বিনিয়োগের পথ খোঁজেন। আপনিও কি বিনিয়োগ করার কথা ভাবছেন,তাহলে আপনার জন্য একটি দারুন সুখবর রয়েছে।

Advertisement

কেন্দ্রীয় সরকার বাজারে এমন একটি স্কিম নিয়ে এসেছে যাতে আপনি প্রত্যেক মাসে ২১ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন। কথাটা শুনতে অবাক লাগলেও আসলে এটাই সত্যি! চাকরি অথবা ব্যবসা করেও হয়তো অনেকে এই টাকা আয় করতে পারেন না। অথচ সেখানে আপনি কোনো ব্যবসা অথবা চাকরি না করেই প্রত্যেক মাসে ২১ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন। কিভাবে পাবেন এই টাকা জেনে নিন।

রেলওয়ে গ্রুপ ডি লেভেল ১ পরীক্ষার প্রার্থীদের জন্য রেলওয়ে নিয়োগ পর্ষদের তরফে বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল

যে সরকারি স্কিমের কথা বলা হচ্ছে তা হলো জাতীয় পেনশন প্রকল্প। জাতীয় পেনশন সিস্টেম অথবা এনপিএস হল একটি সরকারি পেনশন স্কিম। এতে ইকুইটি এবং ঋণ এই দুটি সুবিধাই পাওয়া যায়। এই এনপিএস সরকারের কাছ থেকে গ্যারান্টি পায়। তবে পেনশন শব্দটি শোনা মাত্র আমাদের সকলের মনে আর একটি শব্দের উঁকি দেয় তা হল সরকারি কর্মচারী।

কারন আমাদের প্রায় সকলের ধারনা যে সরকারি কর্মচারীরাই শুধু পেনশন পাবার যোগ্য। কিন্তু তা সত্য নয়।ভারতবর্ষে বসবাসকারী ১৮-৬৫ বছরের যে কোন নাগরিক এই পেনশন স্কিমের সুবিধা নিতে পারেন। এই স্কিমে সরকারি, বেসরকারি এবং অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীরা স্বেচ্ছায় বিনিয়োগ করতে পারেন। এই জাতীয় পেনশন প্রকল্প (এনপিএস) হল কেন্দ্রীয় সরকারের অন্যতম সামাজিক সুরক্ষা প্রদানকারী উদ্যোগ।

DA Latest News: বড় খবর!কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধির আগেই বড় ধাক্কা

নির্দিষ্ট সময় অন্তর নিয়মিত টাকা দেওয়ার সুযোগ রয়েছে এই স্কিমে। যা পরবর্তীকালে গ্রাহকরা পেনশন হিসেবে পাবেন। সকলেই বার্ধক্য জীবন আরামে কাটাতে চান। বিশেষ করে পরিবারের ভবিষ্যৎ নিয়ে পরিকল্পনা করে সকলেই আর্থিকভাবে শক্তিশালী হতে চান। সেক্ষেত্রে জাতীয় পেনশন স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারেন। এবার প্রশ্ন হল এই ২১ হাজার টাকা আপনি কিভাবে পাবেন? তাহলে চলুন এই বিষয়ে বিষদে জেনে নেওয়া যাক।

বিনিয়োগ করবেন কিভাবে?

২০ বছর বয়স থেকে যদি আপনি এই এনপিএসে টাকা জমা দেওয়া শুরু করেন এবং আপনি যদি প্রত্যেক মাসে ১ হাজার টাকা জমা দেন, তাহলে যখন আপনি অবসর নেবেন সেই সময় আপনার টাকা জমা দেওয়ার মোট পরিমাণ ৫.৪ লক্ষ টাকা হবে। এছাড়াও আপনি এখানে বার্ষিক ১০% রিটার্ন পাবেন। ফলে আপনার বিনিয়োগ বেড়ে ১.০৫ কোটি টাকা হবে।

এরপর আপনি যদি কর্পাসের ৪০% বার্ষিকীতে রূপান্তর করতে চান তাহলে তা ৪২.২৮ লক্ষ টাকা হবে। সেই ক্ষেত্রে আপনি আপনার মাসিক পেনশন ১০% হারে ২১ হাজার ১৪০ টাকা পাবেন। এছাড়াও আপনি প্রায় ৬৩.৪১ লক্ষ টাকা এককালীন পেয়ে যাবেন।

এই এনপিএস পেনশন স্কিম হল একটি সরকারি প্রকল্প। এই স্কিমে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড, সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা ইত্যাদি প্রকল্পগুলো অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। আপনি এই এনপিএস এর মাধ্যমে বার্ষিক ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ট্যাক্স বাঁচাতে পারবেন। সরকারি নিয়মানুযায়ী আয়কর ধারা 8OC-এর অধীনে সর্বোচ্চ ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ট্যাক্স দিতে হবে না। কিন্তু যদি আপনি এই এনপিএস-এ বিনিয়োগ করেন তাহলে আপনি আরও ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত করের ছাড় পাবেন।

বর্তমানে এই পেনশন প্রকল্প বিনিয়োগের সেরা বিকল্প হয়ে উঠেছে৷তাই অবসর নেওয়ার পর প্রত্যেক মাসে আপনিও যদি উচ্চ মাসিক পেনশন পেতে চান তাহলে এখন থেকেই আপনি এনপিএস স্কিমে বিনিয়োগ করুন।তাহলেই আপনার ভবিষ্যত সুনিশ্চিত।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

👍 Google News 👍 টেলিগ্রাম চ্যানেলে

Sunita Mallick

আমি সুনিতা মল্লিক Webscte.in এ সকল প্রকারের চাকরি ও শিক্ষার খুঁটিনাটি খবর সহ এই সাইটে সরকারি প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles