Free Railway Pass Rules

Free Railway Pass Rules: ঘুরতে পছন্দ করেন না এরকম মানুষ খুঁজে পাওয়া খুব মুশকিল। ঘুরতে যাওয়া অনেকের কাছে আবার নেশার মতো। আর ঘুরতে যেতে তো সবারই ইচ্ছে করে।ঘুরতে যাওয়া মানেই নতুন নতুন যাওয়া দেখা,সেখানের প্রকৃতির মনোরম দৃশ্য উপভোগ করা। অনেকে আবার এমনও আছেন যারা সারা বছরই কোথাও না কোথাও ঘুরে বেড়ান। আর তাঁদের সব সময়ই ব্যাগ যেন গোছানোই থাকে।

ভ্রমণের জন্য ভারতবর্ষ প্রাচীন কাল থেকেই পর্যটকদের আকৃষ্ট করে। যত দিন যাচ্ছে ভারত যেন ততই পর্যটকদের আর বেশি করে আকৃষ্ট করে তুলছে। ভারতবর্ষ এমনই এক বিশেষ জায়গা যেখানে পাহাড় থেকে সমুদ্র, মরুভূমি থেকে জঙ্গল সব কিছুই রয়েছে। আর এসব বাইরের বিশ্বের মানুষকেও আকৃষ্ট করে।আর ভ্রমণের জন্য অধিকাংশ মানুষই ভারতীয় রেলকে বেছে নেয়।

স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের জন্য সরাসরি অনলাইনে আবেদন করে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত সুযোগ সুবিধা পেয়ে যান

আপনি কি একজন সরকারি কর্মী, তাহলে আপনার জন্য একটি সুখবর রয়েছে। এবার থেকে সরকারি কর্মীরা বিনা টিকিটেই রেলে চড়তে পারবেন। সম্প্রতি সরকারি কর্মীদের উদ্দেশ্যে এমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকারের রেল দফতর। তবে শুধুমাত্র কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরাই বিনা টিকিটে রেল সফরের সুযোগ পাবেন। শুধুমাত্র চাকরিরত কর্মীরাই নয়, অবসর প্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরাও এবার থেকে বিনা টিকিটে রেলে চড়ার সুযোগ পাবেন।

সম্প্রতি ভারতের অর্থ মন্ত্রক একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলেছেন যারা কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরি করেন, এমন কর্মীরা এবার থেকে বিনামূল্যে ট্রেনে ভ্রমণ করতে পারবেন। তবে শুধুমাত্র তেজস এক্সপ্রেস ট্রেনে বিনামূল্যে ভ্রমণ করতে পারবেন। লোকাল ট্রেনে চড়তে গেলে অবশ্য পুরনো নিয়মে সকলকেই রীতিমতো ভাড়া গুনতে হবে।

Lakhir Bhandar: লক্ষীর ভান্ডার নিয়ে দীর্ঘ জট কাটতে চলেছে?কি সেই জট জেনে নিন

সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা যদি অফিসিয়াল ট্যুর করেন, কিংবা বিভিন্ন সরকারি ট্রেনিং অথবা যে কোন জায়গায় বদলি সংক্রান্ত বিষয়ে যাতায়াত করার পাশাপাশি অবসরের পরেও নির্দিষ্ট ভ্রমণের জন্য বিনা টিকিতে ভ্রমণের সুবিধা পাবেন। তবে এক্ষেত্রে সকল কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা ট্রেনের এই পরিষেবার ক্ষেত্রে একই সুবিধা পাবেন না।

কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীর বেতন পরিকাঠামো অনুযায়ী তিনি সুবিধা ভোগ করবেন। কারণ সকল কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের আলাদা আলাদা মাস মাইনের বেতন পরিকাঠামো রয়েছে। সেই অনুযায়ী ভ্রমণের ক্ষেত্রে তিনি ছাড় পাবেন।তেজস ট্রেনকে প্রিমিয়াম ট্রেনের তালিকায় রেখেছে।এর ফলে কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মীরা অফিসিয়াল ট্যুরের জন্য এই ট্রেনগুলিতে ভ্রমণ (Free Railway Pass Rules) করতে পারেন।

SBI Clerk Recruitment 2022: সুখবর!SBI ৫,০০০-র বেশি শূন্যপদে নিয়োগ করছে, আবেদনের যোগ্যতা,তারিখ সহ বিস্তারিত দেখে নিন

এই তেজস ট্রেন কি? কি কি সুবিধা আছে তেজসে?

ভারত সরকারের রেল দফতর এই বিশেষ তেজস ট্রেনের বিশেষ পরিষেবা এনেছে। মূলত ভ্রমন পিপাসু মানুষকে দ্রুত পরিষেবা দিতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।এই ট্রেনটি মাঝারি দ্রুত গতির ট্রেন। এই ট্রেনটি খুবই আধুনিক ও উন্নতমানের প্রযুক্তি সম্পন্ন। এটি কুড়িটি কোচের ট্রেন।

সমস্ত কোচে সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় দরজা লাগানো রয়েছে। এর পাশাপাশি প্রতিটি বগিতে চা-কফির ভেন্ডিং মেশিন রয়েছে। এই ট্রেনের প্রতিটি সিটে এলসিডি স্ক্রিন ও ওয়াই-ফাই সুবিধা রয়েছে সারা ট্রেন জুড়ে।এতে সমস্ত অত্যাধুনিক সুবিধা রয়েছে। এর সর্বোচ্চ গতি ১৬০ kmph শুরুতে ১৩০ kmph দিয়ে শুরু হলেও পরে তা আরো আপডেট করা হয়েছে।

তবে ট্রেন বা পরিষেবা যাই হোক না কেন,মোট কথা তেজস এক্সপ্রেস ট্রেনে চড়তে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ভাড়া লাগবে না (Free Railway Pass Rules)।এবার কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা তেজস ট্রেনের মাধ্যমে দেশ ঘোরার স্বাদ পাবেন। এই খবরে গোটা কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী মহলে স্বাভাবিকভাবেই খুশির হাওয়া বইছে।

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

👍 Google News

👍 টেলিগ্রাম চ্যানেলে

By Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.