বাতিল হল রাজ্যে ৬২ লক্ষের বেশি রেশন কার্ড ! বাতিল তালিকায় আপনার নাম নেই তো ?

স্বাভাবিকভাবে বেঁচে থাকার জন্য খাদ্য,বস্ত্র, বাসস্থান অত্যন্ত জরুরী। তবে ভারতের মত গরিব দেশে বস্ত্র, বাসস্থানের চাহিদার থেকেও বেশি জরুরী খাদ্যের জোগার করা। কারন আমাদের রাজ্যের অধিকাংশ মানুষই দরিদ্র। এমন বহু মানুষ রয়েছে যাদের নুন আনতে পান্তা ফুরোয়। আমাদের রাজ্যে এমনও মানুষ রয়েছে যাঁদের দুবেলা পেট ভরে ভাত জোটে না।

যদিও দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে সারা দেশ জুড়ে সাধারন মানুষ বারবার অন্য বস্ত্র, বাসস্থানের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছেন। তবুও স্বাধীনতার সাত দশক পেরিয়ে গেলেও আজও দেশের অধিকাংশ জায়গা জুড়ে দারিদ্রতার হার বিপুল পরিমানে রয়েছে।তাই দেশবাসীর দু’গ্রাস ভাতের জোগান নিশ্চিত করতেই পশ্চিমবঙ্গ সরকার রেশন ব্যবস্থা চালু করেছেন।

Advertisement

Central Government New Scheme: কেন্দ্রীয় সরকারের বড় চমক! ঘরে বসেই প্রতিমাসে অ্যাকাউন্টে আসবে ২১,০০০ টাকা, কিভাবে জানুন

দেশবাসীর ন্যুনতম চাহিদা মেটাতে দীর্ঘ দিন ধরেই রেশন ব্যবস্থা চালু রয়েছে। অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল এবং পিছিয়ে পড়া মানুষদের জন্যই রেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। রেশনের (Ration) মাধ্যমে সাধারণ মানুষ স্বল্প মূল্যে বিভিন্ন খাদ্য দ্রব্য পান। পাশাপাশি অভাবী মানুষদের কাছেও খাদ্য সংস্থানের ক্ষেত্রে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হল রেশনজাত দ্রব্য।

Advertisement

অবশেষে কাটল জট! পুজোর আগেই প্রাথমিক শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পেতে চলেছেন চাকরিপ্রার্থীরা

মূলত কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের তরফে রেশনের সুবিধা পান সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে করোনা অতিমারির সময়ে সাধারন মানুষের মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার জন্য প্রত্যেকটি রাজ্যে বিনামুল্যে রেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়।প্রত্যেক রাজ্যেই বিনামূল্যে গম, চাল,আটা দেওয়া হয়েছে। করোনার কয়েকটি ঢেউয়ের তরঙ্গ সামলাতে প্রত্যেকটি রাজ্যবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছে কেন্দ্ৰ সরকার এবং রাজ্য সরকার।

তবে এবার রাজ্যের রেশন গ্রাহকদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ খবর সামনে এল। রাজ্যে বাতিল করা হল ৬২ লক্ষেরও বেশি রেশন কার্ড। যে সব অযোগ্য ব্যক্তিরা এতোদিন রেশনের সুবিধা উপভোগ করেছে,সেই সব ভুয়ো রেশন কার্ড এবার বাতিল করা হল।ইতিমধ্যেই অস্তিত্বহীন, মৃত এবং নকল মিলিয়ে ৬২ লক্ষ ১৪ হাজারের বেশি রেশন কার্ড ব্লক করা হয়েছে।

রেলওয়ে গ্রুপ ডি লেভেল ১ পরীক্ষার প্রার্থীদের জন্য রেলওয়ে নিয়োগ পর্ষদের তরফে বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল

সূত্রের খবর প্রায় দেড় কোটি ভুয়ো রেশন কার্ডের কথা জানতে পেরেছে খাদ্য দফতর। আর তার ফলে রাজ্য সরকারের ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে বছরে প্রায় ১৮০০ কোটি টাকা। এই বিপুল অঙ্কের ভুয়ো কার্ডের কথা জানাতে পেরেই খাদ্য দফতর নড়েচড়ে বসেছিল। তার পরেই কার্ড ব্লক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ৬২ লক্ষ ভুয়ো রেশন কার্ড বাতিল করার ফলে আপাতত মাসে ৯০ কোটি টাকা করে সাশ্রয় হচ্ছে রাজ্য সরকারের।

আগামী মার্চ মাসের মধ্যে সব ভুয়ো রেশন কার্ড ব্লক করা হলে সাশ্রয় আরও বেশি পরিমাণ হবে বলেই মনে করছেন খাদ্য দফতরের কর্তারা। তাঁদের মতে সিদ্ধান্ত পুরোপুরি কার্যকর হলে মাসিক সাশ্রয়ের পরিমাণ বেড়ে ১৫০ কোটি টাকা দাঁড়াবে। এই ভুয়ো রেশন কার্ডগুলিকেই হাতিয়ার করে ভর্তুকিযুক্ত খাদ্যশস্য বাইরে পাচার হয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পরই সরকার উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

DA Latest News: বড় খবর!কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের ডিএ বৃদ্ধির আগেই বড় ধাক্কা

যে সকল রেশন কার্ডগুলিকে বাতিল করা হচ্ছে সেগুলিকে খাদ্য দফতরের ওয়েবসাইটে লাল রঙে চিহ্নিত করা হয়েছে। এরপর থেকে আর ওই লাল রং চিহ্নিত অর্থাৎ বাতিল কার্ড দেখিয়ে রেশন দোকান থেকে খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহ করা যাবে না। তবে ভুয়ো কার্ড বাতিলের পাশাপাশি পাল্লা দিয়ে নতুন কার্ডও তৈরি হচ্ছে। জানা গিয়েছে ইতিমধ্যেই প্রায় ৪০ লক্ষ নতুন রেশন কার্ড তৈরি হয়েছে। যদিও ভুয়ো রেশন কার্ডের ব্যাপারে সরকার ক্রমশ কঠোর হচ্ছে।

সুত্রের খবর মালদহ, মূর্শিদাবাদ ও দুই ২৪ পরগনা-সহ বেশ কয়েকটি জেলা থেকে সবচেয়ে বেশী ভুয়ো রেশন কার্ড বাতিল করা হয়েছে। এই ভুয়ো রেশন কার্ড বিষয়ে খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ বলেছেন ধারাবাহিক ভাবে ভুয়ো রেশন কার্ড চিহ্নিত করে তা বাতিল করা হবে। এই কার্ড বাতিল করলে দফতরের অনেক সাশ্রয় হবে। আমরা সব দিক খতিয়ে দেখেই তারপর চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

Written by Probir Biswas

এইরকম আরও নানান গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের ফলো করুন

 Google News  টেলিগ্রাম চ্যানেলে

Probir Biswas

আমি প্রবীর বিশ্বাস Webscte.in এ সকল প্রকারের স্কলারশিপ সহ বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য, সাথে টেক নিউজ, বিনোদন, ব্যবসা-বানিজ্যের ওপরও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ আপডেট দিয়ে থাকি, ধন্যবাদ।

Related Articles